রবিবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২১, ০১:৩০ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
ময়মনসিংহে ১৩০৫ অসহায় পরিবার এবং ফুলপুরে স্বপ্নের নীড় পাচ্ছেন ৯৭ টি ভূমিহীন পরিবার। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন।।শাহজাহান মিয়ার সমর্থনে শত-শত মানুষের সভা অনুুষ্ঠিত। বানারীপাড়ায় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত মোংলা পোর্ট পৌরসভার নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনিত মেয়র ও কাউন্সিলরগন নির্বাচিত বিশ্ব প্রবাসী বানিয়াচং কল্যাণ পরিষদের কমিটি গঠন সুমন সভাপতি সাইফুল সেক্রেটারী। ডাঃ মোঃ ফখরুজ্জামানের পদোন্নতিতে ফুলপুর সাহিত্য পরিষদের ফুলেল শুভেচ্ছা। হট ফেভারিট চকরিয়া উপজেলা ফুটবল দলকে ১-০ গোলে হারিয়ে রামু উপজেলা ফুটবল দলের শুভ সূচনা বালিয়া মাদ্রাসা পরিদর্শন করেছেন প্রতিমন্ত্রী জনাব শরীফ আহমেদ শরিফ। রামুতে র‍্যাবের অভিযানে ১৯হাজার ৭শ পিস ইয়াবাসহ রোহিঙ্গা আটক সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব মো মতিউর রহমান সাহেবের ৮১তম জন্মদিন উদযাপন।।

আমি যে অপরাধ করেছি তা ক্ষমার অযোগ্য- মেয়র রুকন

মোঃ রবিউল ইসলাম, সরিষাবাড়ি প্রতিনিধিঃ
“আমি গত ৫ আগস্ট লাইভে এসে যা বলেছিলাম তা বলা আমার ঠিক হয়নি। তার জন্য আন্তরিকভাবে দুঃখিত। আমি সরিষাবাড়ী সূর্য সন্তান ও জামালপুর জেলার গর্ব বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডাঃ মুরাদ হাসান এর কাছে হাতজোড় করে ক্ষমা চাচ্ছি। ক্ষমা চাচ্ছি সরিষাবাড়ী মানুষের কাছে, নেতৃবৃন্দের কাছে এবং সারা দেশবাসীর কাছে। আমি চরম ভুল করেছি। আমি যে ভুল করেছি তা ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ। আমার মাথা ঠিক ছিল না”
গতকাল ফেইসবুক লাইভে ৪ মিনিট ১৮ সেকেন্ড ধরে এ কথাগুলো বলেন সরিষাবাড়ীর বিতর্কিত মেয়র রোকুনুজ্জামান রোকন।

এর আগে পহেলা এপ্রিল ২০২০ শুক্রবার দুপুরে সরিষাবাড়ী স্পোর্টস এসোসিয়েশন কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে পৌরসভার ১২ জন কাউন্সিলর মেয়রের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রদান করেন।
তার নামে করোনা ভাইরাসের ত্রাণ বিতরণে অনিয়ম-দুর্নীতি, স্বেচ্ছাচারিতা ও ক্ষমতার অপব্যবহার করে নামে-বেনামে বিল- ভাউচারে ব্যক্তি, সংগঠন, পরিছন্নতা এবং সরিষাবাড়ী কেন্দ্রীয় বাস স্ট্যান্ড নির্মাণে বরাদ্দকৃত অর্থ সহ অন্যান্য প্রকল্পের অর্থ আত্মসাৎ করার অভিযোগ উঠে।
পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ১৩ – ১৬ মাসের বেতন বকেয়া কাউন্সিলরদের ১৩ – ১৪ মাসের সম্মানি বকেয়া রেখে মেয়র তার নিজের সম্মানী উত্তোলন করেছেন এবং মুক্তিযোদ্ধা কোটা বাদ দিয়ে বিএনপি জামাত ও তার নিকট আত্মীয়দের থেকে ১২ থেকে ১৫ লক্ষ টাকা নিয়ে নিয়োগ দিয়েছেন এমন অভিযোগ ও উঠে।

কিন্তু মেয়র রুকন উপর আনিত অভিযোগ এর পেছনে তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডাঃ মুরাদ হাসান এম.পি ও তার আস্থাভাজন প্রতিনিধি শাখাওয়াত আলম মুকুল রয়েছে বলে ফেইজবুক সহ বিভিন্ন জায়গায় অপ-প্রচার করেন। তার এমন মন্তব্য সম্পূর্ণ মনগড়া ও বানোয়াট বলে সরিষাবাড়ী পৌরবাসী মনে করেন।

আর তিনি নিজেও তা স্বীকার করে গতকাল লাইভে এসে তথ্য প্রতিমন্ত্রীর নিকট ক্ষমা প্রার্থনা করে এসব কথা বলেন।

সংবাদটি ফেসবুকে শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017 আজকের তাজা খবর
Design & Developed BY Suhag Rana