শুক্রবার, ০৫ মার্চ ২০২১, ০৩:০৮ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
বানারীপাড়া পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর তরুন জননেতা একে এম জাহিদ হোসেন সরদার ১০০ ফুট সিংহ্যশয্যা বৌদ্ধ মূর্তি সম্বলিত বিহার পরিদর্শনে বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার শ্রীবরদীতে (০২)টি পাতিল হাতির অবস্থান। বানারীপাড়ায় উপজেলা বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের কমিটি গঠন ৭ই মার্চ ও ১৭ই মার্চ উদযাপনে বানিয়াচংয়ে প্রস্তুতি সভা সমাজসেবাই বিশেষ অবদানের জন্য আবারো ন্যাশনাল হিউম্যান রাইটস এন্ড ডেভেলপমেন্ট সোসাইটি ক্রেষ্ট ও সনদপত্র পেলেন ইউপি চেয়ারম্যান আকবর আলী ময়মনসিংহের ফুলপুরে জাতীয় ভোটার দিবস পালিত। জামালপুরে এক কিশোরীর গাছে ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার শিক্ষক দ্বারা শিক্ষার্থী ধর্ষণ মামলা থেকে রক্ষা পেতে বিয়ে ! পরবর্তিতে তালাক এর নোটিশ । রাজনগরে পরনের কাপড় ছাড়া সব কিছু পুড়ে ছাই হয়ে গেছে সুফিয়ার

কুড়িগ্রামের রাজিবপুরে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন হুমকীর মুখে নদীর তীরবর্তী বিভিন্ন গ্রাম

 আনোয়ার হোসেন, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি :

তারিখ-১৮.০১.২১ ইং কুড়িগ্রামে যেনতেন ভাবে ড্রেজার মেশিন দিয়ে নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের ফলে হুমকির মূখে পড়েছে জেলার রাজিবপুর উপজেলার নদীর তীরবর্তী বিভিন্ন গ্রাম। এলাকার প্রভাবশালীরা এমন রমরমা বালুর ব্যবসা চালালেও এব্যাপারে প্রশাসন কোন ভূমিকাই পালন করছেন না বলে এলাকাবাসীর অভিযোগ। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, কুড়িগ্রামের রাজিবপুর উপজেলার ব্রহ্মপুত্র, জিঞ্জিরাম এবং সোনাভরি নদীতে সারি সারি অন্তত ৩০টি ড্রেজার মেশিন নদীর কিনারে বসিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করছে প্রভাবশালী বালু উত্তোলনকারীরা। বসত ভিটা, রাস্তা, বøক তৈরি, স্কুল মাঠ ভরাটের জন্য ট্রাক্টর দিয়ে বিভিন্ন জায়গায় বিক্রি হচ্ছে এসব বালু। এতে উপজেলার অনেক নদীতে অসময়ে ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে। নদী তীরবর্তী মোহনগঞ্জ, চর নেওয়াজী, কোদালকাটি, বাউল পাড়া, বালিয়ামারী, রাজিবপুর মুন্সিপাড়াসহ বেশ কয়েকটি গ্রাম হুমকির মুখে পড়েছে। ড্রেজার মেশিনে বালু উত্তোলনকারী মোহনগঞ্জ ইউনিয়নের শামীম হোসেন জানান, রাজিবপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আব্দুল হাই সরকার আমাকে অনুমতি দিয়েছেন এবং তা আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করে দিয়েছেন। বালু উত্তোলন করা এলাকার অনেকেই নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানিয়েছেন, উজ্জল হোসেন নামের এক ড্রেজার মেশিন মালিক ডাকাত দলের সদস্য। কেউ ড্রেজার সম্পর্কে কথা বলতে গেলে ডাকাতের ভয় দেখায়। ড্রেজার মালিক মতিউর রহমান বলেন, প্রশাসনকে প্রতিমাসে ২ হাজার করে টাকা দিতে হয়, টাকা দিলে সব চলে। এবিষয়ে উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আব্দুল হাই সরকারের নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, আনুষ্ঠানিকভাবে আমি উদ্বোধন করি নাই। তবে আমার একটি ড্রেজার মেশিন আছে যা সরকারী রাস্তার কাজে এবং পানি উন্নয়ন বোর্ডের বøক তৈরির কাজের জন্য বালু উত্তোলন করা হচ্ছে। প্রশাসনিকভাবে নিষেধ করা সত্বেও ক্ষমতার অপব্যবহার করে ধুমছে চালাচ্ছে বালুর ব্যাবসা। অবৈধ ড্রেজার মেশিন বন্ধের জন্য দফায় দফায় রাজিবপুর উপজেলা ভুমি কমিশনার, কুড়িগ্রাম পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলীর নিকট অভিযোগ করেও কোন প্রতিকার পাচ্ছে না ভ‚ক্তভোগিরা। এব্যাপারে রাজিবপুর উপজেলা কমিশনার (ভ‚মি) গোলাম ফেরদৌস জানান, আমি ড্রেজার মেশিন চালানোর কোনও অনুমতি দিইনি। কয়েকদিন আগে মোহনগঞ্জ ইউনিয়ন সহকারী ভ‚মি কর্মকর্তা খালেকুজ্জামানকে পাঠিয়ে অবৈধ ড্রেজার বন্ধ করিয়েছি। কাজের চাপে ওই এলাকায় যাওয়া হয় নাই। তবে আমি দ্রæত এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নেব। চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহে কুড়িগ্রাম পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আরিফুল ইসলাম নদী শাসনের কাজ পরিদর্শনে এসে কয়েকটি ড্রেজার মেশিনের কিছু মালামাল জব্ধ করে নিয়ে সব ড্রেজার বন্ধের নির্দেশ দিয়ে চলে যান। কিন্তু আবারও চালু করা হয় ওই সব ড্রেজার মেশিন। পানি উন্নয়ন বোর্ডের এ নির্বাহী কর্মকর্তা জানান, কোন ড্রেজার মেশিনের অনুমতি আমার দেয়া নাই। আমার নাম ব্যবহার করে কেউ মেশিন চালালে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নবীরুল ইসলাম জানান, কেউ এ বিষয়ে অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সংবাদটি ফেসবুকে শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017 আজকের তাজা খবর
Design & Developed BY Suhag Rana