শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১, ১১:৩১ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
বানিয়াচংয়ে জায়গা সংক্রান্ত বিরোধ নিয়ে দু’পক্ষের ঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষে নারী-পুরুষসহ আহত ১৫জন।।মুমূর্ষু অবস্থায় একজনকে সিলেট প্রেরন।। বৃক্ষপ্রেম থেকে সফল নার্সারি ব্যবসায়ী, বকুল মিয়ার দুঃখ সংগ্রাম সফলতা ও জীবনের গল্প। আবারো প্রমান মিললো রমজান রাত প্রায় ৩ টা নাগাত ! মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য। সাপাহারে পুলিশের উদ্যোগে পথচারীদের মাঝে ইফতার বিতরণ বাংলাদেশে এই প্রথম বৌদ্ধ সমাজে ২০ কোটি টাকা বাজেটে ৫ তলা বিশিষ্ট সংঘ হাসপাতালের ভিত্তিপ্রস্থর বানিয়াচংয়ে বৃদ্ধ‘র মৃত্যু রহস্য ঘিরে ধু্ম্রজালের সৃষ্টি ফুলপুরে দরিদ্র কৃষকের ধান কেটে মানবতার পরিচয় দিল ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। কুড়িগ্রামে কৃষক লীগের ৪৯তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত “আয়োজন করা হলো অনলাইন সিলেটি কুইজ প্রতিযোগিতা-২.০” সংবাদ সম্মেলন।। গ্রাম্য মাতব্বরদের ইন্ধন,বানিয়াচংয়ে প্রতিপক্ষের হামলায় নারী আহত। বসতঘর ভেঙ্গে দেওয়ায় খোলা আকাশের নীচে মানবেতর জীবনযাপন।

ফুলপুরে শিক্ষার্থীদের বৃত্তি টাকা তুলে নিচ্ছে প্রতারক চক্র।প্রতারকচক্রের খপ্পরে ‘উপবৃত্তি’।

 গোলাম মোস্তফা ফুলপুর প্রতিনিধি: সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোতে শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির টাকা মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে অভিভাবকদের কাছে পৌঁছে দেওয়া হয়।কোনও বিড়ম্বনা ছাড়া খুব সহজেই অভিভাবকদের মোবাইল ফোনে পৌঁছে যায় টাকা। কিন্তু আধুনিক এ সুবিধা সম্পর্কে কোনও ধারণাই নেই অনেক অভিভাবকের।এ সুযোগে প্রতারক চক্র অভিভাবকদের ধোঁকায় ফেলে কখনও নগদের এজেন্ট,আবার কখনও কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে হাতিয়ে নিচ্ছে গোপন পিন নম্বর।আর এভাবেই শিক্ষার্থীদের বৃত্তির টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে প্রতারকরা। সম্প্রতি ফুলপুর উপজেলার বালিয়া ইউনিয়নের উত্তরকান্দা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বেশ কিছু ছাত্রছাত্রীদের অভিভাবকদের কাছ থেকে এভাবেই উপ-বৃত্তির টাকা হাতিয়ে নেওয়ার ঘটনা ঘটছে। ভুক্তভোগী অভিভাবকদের বলছেন,তাদের ফোনে উপবৃত্তির টাকা আসলে শিক্ষকরা তাদের জানিয়ে দেন।তারা স্থানীয় এজেন্টদের মাধ্যমে টাকাগুলো তুলে থাকেন।প্রতারকরা তাদের ফোন করে মোবাইল ব্যাংকিং সেবার এজেন্ট, কর্মকর্তা,স্কুলের শিক্ষক পরিচয় দিয়ে একটি পিন নম্বর পাঠায় এবং এটি তারা জানতে চায়।কিন্তু এবার তাদের মোবাইলে একটি ওটিপি কোড পাঠিয়ে তাদের বলা হয়েছে,দ্রুত টাকা পেতে হলে কোডসহ আমাদের নির্দেশনা অনুসরণ করুন।এভাবে নেওয়া হয় তথ্য।পরবর্তীতে একাউন্ট থেকে হাতিয়ে নেন টাকা। উত্তরকান্দা গ্রামের অভিভাবক নুরজাহান ও রহিমা খাতুন বলেন,ফোন করে শিক্ষকের কথা বলে মেসেজে আসা নম্বরটা চাইলে দিয়ে দিই।পরে মোবাইল নিয়ে দোকানে টাকা তুলতে গেলে দেখি টাকা নেই।

সংবাদটি ফেসবুকে শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2017 আজকের তাজা খবর
Design & Developed BY Suhag Rana