অবশেষে ফেসবুকে আবুল তাবুল পোস্ট করার কারন জানালেন -নোবেল

ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের সাইবার ক্রাইম ডিভিশনের তলবের প্রেক্ষিতে বুধবার (১৯ মে) বিকেলে ডিএমপি সদর দফতরে যান কণ্ঠশিল্পী মাঈনুল আহসান নোবেল। সেখানে ডিএমপির সাইবার সিকিউরিটি ও ক্রাইম ইউনিটের পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে দেখা করেন তিনি। সেখানে সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দেয়া তার পোস্টগুলোর বিষয়ে জানতে চাওয়া হয়।

এসময় নোবেল পুলিশকে জানান, তার মানসিক চিকিৎসা চলছে। পুলিশের সঙ্গে সাক্ষাতের পর ফেসবুকেও তার মানসিক চিকিৎসার কথা জানান।

আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সূত্র জানায়, নোবেলের বিরুদ্ধে কোনো মামলা না থাকায় তাকে আনুষ্ঠানিকভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়নি। তবে তার সাম্প্রতিক পোস্টগুলোর পেছনের উদ্দেশ্য জানতে চাওয়া হয়েছে। পুলিশের কাছে তিনি নিজেকে মানসিকভাবে অসুস্থ বলে দাবি করেছেন। এ ছাড়াও তার কয়েকটি বিতর্কিত পোস্টের বিষয়ে তিনি ফেসবুক হ্যাকড/অন্য কেউ পোস্ট দিয়েছে বলে দাবি করেছেন। যদিও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নোবেলের ফেসবুক হ্যাক হওয়ার কোনো প্রমাণ পায়নি।

সূত্র আরও জানায়, এ সময় নোবেলকে তার ফেসবুক পোস্টের ত্রুটিবিচ্যুতিগুলো সম্পর্কে জানানো হয়। পাশাপাশি এ সংক্রান্ত আইনগুলোর বিষয়ে তাকে অবগত করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে মামলা না থাকায় তাকে আটকে রাখা হয়নি। তবে নোবেলকে জানানো হয় কেউ যদি তার বিরুদ্ধে মামলা করে তাহলে প্রচলিত আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন ডিভিশনের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) মো. নাজমুল ইসলাম বলেন, ‌‘নোবেলের সঙ্গে কথা বলেছি। তাকে ডেকে তার পেজে অশোভনীয় পোস্ট নিয়ে সাইবার আইনের ভাষ্য, সাইবার ইথিক্স ও ইন্টারনেট ব্যবহারকীদের প্রতিক্রিয়া নিয়ে অবগত করা হয়েছে। আশা করি তিনি নিজের অন্যায় বুঝতে পেরেছেন।’

তিনি বলেন, ‘তবে তার পোস্টে ক্ষুব্ধ এবং ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিদের আইনি পদক্ষেপ নেয়ার অধিকার রয়েছে। তারা চাইলে প্রচলিত আইনে অভিযোগ করতে পারেন। এমন অভিযোগ থাকলে পুলিশও আইন অনুযায়ী কাজ করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x